অনলাইন রিসেলিং ব্যবসা করে প্রচুর ইনকাম করুন।

আমি আপনাকে সফল রিসেলার হিসেবে তৈরি করে দিব। সেজন্য আপনাকে শুধু আমার এই পোস্ট বা আর্টিকেল টি মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।


রিসেলিং কে আমি মূলত দুই ভাগে ভাগ করেছি, মানে আপনি আমার দেওয়া তথ্য মতে, দুইভাবে রিসেলিং করে ইনকাম বা আয় করতে পারবেন। চলুন জেনে নেই দুটি রিসেলিং প্রকারভেদ সম্পর্কেঃ

প্রকারভেদ ০১ঃ ইনভেস্ট বা টাকা দিয়ে কিনে রিসেলিং।

প্রকারভেদ ০২ঃইনভেস্ট না করে কমিশন ভিত্তিক রিসেলিং (রিকমেন্ডেড এবং সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়)


প্রকারভেদ ০১,বিস্তারিতঃ ইনভেস্ট বা টাকা দিয়ে কিনে রিসেলিঃ যদিও এই প্রথম রিসেলিং মডেলটি বেশি একটা জনপ্রিয় নয়, তবে আপনি চাইলে এভাবে রিসেলিং ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

এই মডেলটির মূল পয়েন্ট হলোঃ পাইকারি বা কম দামে পণ্য কিনে এনে একটু বেশি দাম দিয়ে বিক্রি করা। যেহেতু আপনি পণ্য কিনে আনবেন, তাই পণ্য বিক্রি করতে না পারলে কিন্তু, আপনার অর্থ এই পণ্যের মাধ্যমে আটকে থাকবে।

তাই কিনে এনে রিসেলিং করুন তবে যে পণ্যের চাহিদা অনেক বেশি থাকে সে সকল পণ্য রিসেল করার চেষ্টা করুন, এর ফলে দ্রুত লাভবান হয়ে যাবেন।


পণ্য কিনে এনে রেসলিং করার একটি ভালো দিকঃ এই মডেলের ভালো দিক হলোঃ কাস্টমার চাহিবা মাত্র আপনি পণ্যটি দেখাতে পারবেন, বা দ্রুত ডেলিভারি দিতে পারবেন, এর ফলে কাস্টমারও হ্যাপি থাকবে এবং আপনিও দ্রুত লাভবান হয়ে যাবেন।


প্রকারভেদ ০২, বিস্তারিতঃ ইনভেস্ট না করে কমিশন ভিত্তিক রিসেলিংঃ এই দ্বিতীয় মডেলটি সারা বিশ্বে খুবই জনপ্রিয়, এটা অনেকে ড্রপ শিপিং বলেও জেনে থাকবেন।

এই মডেলের মাধ্যমে, লস বা অর্থ আটকে থাকার ভয় নেই। এই মডেলটির মূল পয়েন্ট হলোঃ পণ্যের মালিক অন্য কেউ থাকবে, আপনি কাস্টমারের কাছ থেকে অর্ডার নিয়ে, সেই অর্ডারটি পণ্যের মালিকের কাছে ট্রান্সফার করে দিবেন।

এবং পণ্যের মালিক আপনার শপের নাম বা আপনার নাম দিয়ে কাস্টমারের কাছে পণ্যটি ডেলিভারি করে দিবে, এর ফলে আপনি কিছু কমিশন পেয়ে যাবেন (বাংলাদেশে এমন একটি প্ল্যাটফর্ম হল Dhonno.com।


এখানে আপনি একটি একাউন্ট করার পর, আপনার নিজের জন্য বা কাস্টমারের জন্য কোন অর্ডার করলে, DHONNO eCOMMERCE কোম্পানি আপনার শপের নাম বা আপনার নিজের নাম দিয়ে পণ্যটি ডেলিভারি করে দিবে আপনার কাস্টমারের কাছে। এর ফলে আপনি আপনার একাউন্টে অটোমেটিক ভাবে কমিশন পেয়ে যাবেন)

Dhonno.com এ কিভাবে রিসেলিং অর্ডার করতে হয় এই ভিডিওটি দেখলে বুঝতে পারবেন।

 


না বুঝে থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করুন কি বুঝতে পারেন নি?

 

Enjoyed this article? Stay informed by joining our newsletter!

Comments

You must be logged in to post a comment.

Related Articles